৭৬ মিনিট আগের আপডেট; রাত ১২:৪২; বুধবার ; ২৭ জানুয়ারী ২০২১

মহিলা মেম্বার প্রার্থী 'সেলিনার' প্রশংসায় এলাকাবাসী

নাজিম উদ্দিন, পেকুয়া ০৭ জানুয়ারী ২০২১, ২১:৫৭

পেকুয়ায় মহিলা মেম্বার প্রার্থী 'সেলিনা আকতার' এখন আলোচনায়। এলাকাবাসীর প্রশংসায় তিনি এখন পঞ্চমুখ। পেকুয়া সদর ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ড থেকে মেম্বার পদে লড়বেন তিনি। তিনি বাড়ি বাড়ি গিয়ে গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। এলাকাবাসীর সাথে কোশল বিনিময় করছেন।সাধারন মানুষও ঝুঁকছেন তার দিকে। মেম্বর পদে প্রার্থী  হিসাবে প্রশংসায় ভাসছেন সেলিনা আক্তার।

ইউপি নির্বাচন আরো ২/৩ মাস বাকি রয়েছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা চষে বেড়াচ্ছেন মাঠে ময়দানে। ঘুরে বেড়াচ্ছেন এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। গ্রাম থেকে গ্রামন্তরে। নির্বাচনী হাওয়া বইছে মাঠে ময়দানে। তবে বসে নাই কোন প্রার্থী। আপন গতিতে চালিয়ে যাচ্ছে নির্বাচনের প্রচারণা। সময় যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই বেড়ে যাচ্ছে নির্বাচনী আমেজ। চায়ের গরমের সাথে গরম হচ্ছে নির্বাচনের মাঠ। আলোচনা-সমালোচনা চলছে মানুষের মুখে মুখে। ষ্টেশন ও চায়ের দোকানে এখন আলোচনা চলছে শুধু নির্বাচন নিয়ে। কে হতে পারে ক্ষমতার চেয়ারের মালিক।

জানা গেছে, সেলিনা আকতার সদর ইউনিয়নের পুর্ব গোঁয়াখালী গ্রামের আবুল কামালের স্ত্রী। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মহিলা মেম্বর পদে প্রার্থীতা ঘোষনা করে সেলিনা আকতার। দীর্ঘদিন ধরে প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। ভোট যুদ্ধে কোমর বেধে নেমেছেন তিনি। জনগণের সাড়াও পাচ্ছেন। জনগনের ইচ্ছায় তিনি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছেন। তিনটি ওয়ার্ডে বিপুল ভোট ব্যাংক রয়েছে তার।

ভোটারেরা জানায়, ১নং ওয়ার্ডে নানার বাড়ি, ২নং ওয়ার্ডে শ্বাশুর বাড়ি আর ৩নং ওয়ার্ড তার পিতার বাড়ি। এছাড়া তিনটি ওয়ার্ডে তার রয়েছে অসংখ্য আত্মীয় স্বজন। একজন নম্র, শিক্ষিত ও ভদ্র মহিলা সেলিনা। সবকিছু মিলিয়ে এবার চমক দেখাতে পারেন তিনি। ভোটারেরা জানায়, ভোট আসলে প্রার্থীরা নানা প্রতিশ্রুতি দেয়। কিন্তু ভোট শেষ হলে ভুলে যায় তাদের দেয়া সেসব প্রতিশ্রুতি। দেখায় মেলেনা জনপ্রতিনিধিদের। আমরা জেনে,বুঝে এবার ভোট দিব। আমরা পুরাতন হাড়িতে দই বসাবোনা। আমরা এবার সেলিনাকে ভোট দিয়ে মেম্বার নির্বাচিত করব।

ভোটাররা আরো জানায়, আমরা অতীতে অনেককে ভোট দিয়ে মেম্বার করেছি। আমরা পরিবর্তন চাই। আমরা সেলিনা আকতারকে যে কোন আপদ-বিপদে পাশে পেয়েছি। মেম্বার না হয়েও আমাদেরকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। আমরা আগামী নির্বাচনে তাকে ভোট দিয়ে মহিলা মেম্বর নির্বাচিত করব।

সেলিনা আকতার জানান, আমি দেশ ও জনগণের  সেবা এবং এলাকার উন্নয়ের জন্য ভোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মানুষের দ্ধারে দ্বারে যাচ্ছি। জনগনের সাড়াও পাচ্ছি। জনগণ চাইলে তাদের খেদমত করার সুযোগ পাব । আমি চাই জনগণের খেদমত করতে। সবাই আমার লক্ষ্য। জয় পরাজয় আল্লাহর হাতে। কেউ আমার প্রতিপক্ষ নই। আমি সকলের দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশী।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ১৫৯