১১০ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৯:৪২; রবিবার ; ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

যে শহরের ঘড়িতে কখনোই ১২টা বাজে না

অনলাইন ডেস্ক ০৫ অগাস্ট ২০২১, ২১:৪৫

ধরুন আপনি সময় দেখতে ঘড়ির দিকে তাকিয়েছেন, কিন্তু ঘড়িতে ১২ নম্বরটি  নেই। হ্যাঁ এটা একদম সত্য। পৃথিবীতে এমন একটি জায়গা আছে যেখানে ঘড়ি কখনই ১২টা বাজে না। 
 
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সুইজারল্যান্ডের উত্তর পশ্চিমের শহর সোলোথার্নে রয়েছে এ রকম অদ্ভুত ঘড়ি। 

জানা গেছে, সোলোথার্নে ঘুরতে গিয়ে পর্যটকেরা কিছু সময়ের জন্য থমকে যান শহরের কেন্দ্রস্থল টাউন স্কয়ারের সামনে ঘড়ির দিকে তাকিয়ে। সেই ঘড়িতে আছে ১১টি সংখ্যা। অর্থাৎ কখনো ১২টা বাজে না এই ঘড়িতে। 

শুধু ঘড়ি নয়, এই শহরের সঙ্গে ১১ সংখ্যাটার সম্পর্ক একটু বেশিই নিবিড়। শহরের কমবেশি সবকিছুর সঙ্গেই জুড়ে রয়েছে ১১ সংখ্যাটি। যেমন এই শহরে রয়েছে ১১টি জাদুঘর, ১১টি গির্জা, ১১টি ঝরনা-সহ আরও অনেক কিছু। 

প্রায় ২০০০ বছর আগে রোমানরা সোলোথার্নে শহরের পত্তন করেছিলেন। যদিও তখন এতটা জনপ্রিয় ছিল না ওই শহর। তবে যত দিন গিয়েছে এই শহরের সঙ্গে ১১ সংখ্যাটি জড়িয়ে গেছে কাকতালীয়ভাবে। ১২১৫ সালে যখন সোলোথার্নে কাউন্সিলর নির্বাচনে হয়, তখন ১১ জন প্রতিনিধিকে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

১৪৮১ সালে সোলোথার্ন সুইস কনফেডারেশনের ১১ তম প্রদেশ হিসেবে যুক্ত হয়। ওই সময় ১১ জন শহর রক্ষাকর্তা নিয়োগ করা হয়েছিল। এর পর ১৫ শতকের শুরুর দিকে শহরে সেন্ট আরসুস গির্জা নির্মাণ করা হয়। সেই গির্জায় রয়েছে ১১টি দরজা, ১১টি জানলা, ১১টি সারি এবং ১১টি ঘণ্টা। ওই গির্জা তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছিল ১১ রকমের পাথর।