১৩১ মিনিট আগের আপডেট; রাত ১২:৪০; রবিবার ; ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

আচরণবিধি মানছেই না আওয়ামী লীগ প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী: সড়ক উদ্বোধন ও মহড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৩৫

চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থী আলমগীর চৌধুরী একের পর এক আচরবিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে তিনি পৌরসভার উন্নয়ন প্রকল্পের সড়কের আরসিসি ঢালাই কাজের উদ্বোধন করেছেন। 

পৌরসভা (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৫-এর ২৫ অনুচ্ছেদে উল্লেখ করা আছে, নির্বাচনী এলাকার জন্য প্রকল্প অনুমোদন, ফলক উন্মোচন সংক্রান্ত বাধা-নিষেধে উল্লেখ আছে, সরকারি, আধা-সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে রাজস্ব বা উন্নয়ন তহবিলভুক্ত কোন প্রকল্পের অনুমোদন, ঘোষণা বা ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন কিংবা ফলক উন্মোচন করা যাবে না। ওই ধারা অনুযায়ী আওয়ামী লীগ প্রার্থী আলগীর চৌধুরী সড়কের কাজের উদ্বোধন করে আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন।

এর আগেও তাঁর বিরুদ্ধে প্রচারণায় ও ফেসবুকে উস্কানিমূলক বক্তব্য বা বিবৃতি এবং উচ্ছৃঙ্খল আচরণ, মিছিল, সমাবেশ, শোডাউন, খাদ্য পরিবেশন, উপঢৌকন প্রদান, ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রচারণাসহ নানা অভিযোগ পাওয়া গেছে। যা নির্বাচন কমিশনের আচরণবিধি ২০১৫সালের ২৩নভেম্বর সর্বশেষ প্রজ্ঞাপনের ধারা ও উপধারায় সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে উল্লেখ রয়েছে। 

প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে পৌরশহরের সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সড়কে নির্মিত আরসিসি ঢালাই কাজের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী। এসময় শতাধিক নেতাকর্মী ও স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন। সোমবার বিকেল পাঁচটার দিকে প্রায় তিন শতাধিক লোকজন নিয়ে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মহড়া দেন। 

একইদিন তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি (Alamgir Chowdhury) থেকে উস্কানিমূলক বক্তব্য ও বিবৃতি দিয়েছে। আচরণবিধি লঙ্ঘন করে নির্বাচনী সমাবেশের আয়োজনও করছেন। নির্বাচনী প্রচারণাকালে ব্যক্তিগত চরিত্র হনন করারও অভিযোগ উঠেছে। বহিরাগত লোকজন এনে ভোটের মাঠে প্রভাব বিস্তার করছেন। 

এই বিষয়ে বক্তব্য নিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আলমগীর চৌধুরীর ব্যবহৃত মুঠোফোনে সাতবার ফোন করা হয়। তিনি ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা সৈয়দ শামসুল তাবরীজ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ প্রার্থী সড়কের কাজের উদ্বোধন করা আচরণবিধি লঙ্ঘনের সামিল। উদ্বোধন করার বিষয়টি জানার তাঁকে ডাকা হয়েছে। যাঁরা আচরণবিধি লঙ্ঘন করবে তাঁদের ছাড় দেওয়া হবে না।’ 


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ৭৯৫