১ মিনিট আগের আপডেট; দিন ৯:১০; সোমবার ; ২৯ নভেম্বর ২০২১

উন্নয়ন অগ্রগতি নিয়ে নৌকা এবং সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

বদরুল ইসলাম বাদল ২২ নভেম্বর ২০২১, ২৩:৪০

নৌকা বঙ্গবন্ধু এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন, সমৃদ্ধি, শান্তি, স্বাধীনতা ও গনতন্ত্রের প্রতীক। বাংলাদেশের প্রতিটি উন্নয়নের সঙ্গে নৌকার অবদান রয়েছে।তাই  নৌকার উন্নয়ন জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নৌকার প্রার্থীকে বিজয় করতে নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন দলের সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী। তাই প্রত্যেককে  দলের সীদ্ধান্তকে সার্বজনীন মনে করে নৌকা

বিজয়ের জন্য কাজ করা দরকার বলে মনে করেন দলের শুভাকাঙ্ক্ষী এবং নীতি নির্ধারনী মহল।তাই পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়নে নৌকার  মনোনীত প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলার  বিজয়ে সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে   কাজ করা আবশ্যক।

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা। বলিষ্ঠ কন্ঠের আত্মমর্যাদার প্রতি শ্রদ্ধাশীল আত্মপ্রত্যয়ী একজন সাবেক শিক্ষক।  চকরিয়া উপজেলার  উপকূলীয় জনপদ পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়নের বার বার নির্বাচিত  স্বনামধন্য  চেয়ারম্যান।বহুল পরিচিত  মুখ।

সমাজসেবক, ক্রীড়ামোদী  এবং সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব।  নব্বই দশকের দিকে  ইলিশিয়া জমিলা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াকালীন কোন এক অনুষ্ঠানে একটি দরাজ  কন্ঠের আওয়াজ এখনো কানে বাজে।কন্ঠে ছিল বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের বিদ্রোহী কবিতার আবৃত্তি।

"বল বীর-
বল উন্নত মম শির!
শির নেহারি আমারি,
নত-শির ওই শিখর হিমাদ্রীর"।

হল ভর্তি ছাত্র ছাত্রী এবং  আগত অতিথি    পিনপতন নিরবতায় উপভোগ করলো কবিতা।নিস্তব্ধ হলরুমে শুধু কন্ঠের বজ্র। বিদ্রোহী কবির সে প্রতিবাদী অগ্নিঝরা বাণী আর রক্ত টকবক করা কথামালা। আর যখন কবিতার এক পর্যায়ে কন্ঠে উচ্চারিত হল,
"মহা-বিদ্রোহী রণ-ক্লান্ত
আমি সেই দিন হব শান্ত
যবে উত্পীড়িতের ক্রন্দন -রোল,আকাশে বাতাসে ধ্বনিবে না
অত্যাচারীর খড়গ কৃপাণ ভীম রণ-ভূমে রণিবে না-""

তখন  ছাত্র ছাত্রী এবং উপস্থিতির চোখ থেকে যেন আগুন ঝরে।পাঠ করে যেন   অন্যায় অবিচারের টুটি  চেপে ধরার মুষ্টিবদ্ধ শপথ। কন্ঠটিতে ছিল আজকের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা ।সেই দিনের  চেনা বাবলা ভাই  পরে শিক্ষক, সমাজ সেবক এবং সফল রাজনীতিবিদ।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শে নিবেদিত  প্রান বাবলা ভাই রাজনীতির মাঠে  যুবলীগ কৃষকলীগ এবং আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন হয়ে নিজের রাজনৈতিক প্রতিভার সাক্ষর রাখেন।  বর্তমানে  মাতামুহুরি উপজেলার  (সাং) সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন ।  সেই থেকে পা পা করে চকরিয়ার অবহেলিত জনপদ  প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সেবা দিয়ে আসছেন। সুখে দুঃখে মানুষের পাশে থেকে সামাজিক পরিবর্তনে নিজেকে নিয়োজিত রাখেন।

যার জন্য নির্বাচিত হয়ে আসছেন বার বার ইউপি  চেয়ারম্যান।সাংস্কৃতিক চেতনায় জাগ্রত বিবেককে সব সময় অসহায় মানুষের পাশে থেকে সহযোগিতা করে চলছেন নিরহংকারী বাবলা ভাই। তিনি  প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বস্ত সৈনিক  হিসেবে নভেম্বর 28 তারিখের পশ্চিম বড় ভেওলা ইউপির  নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। বিজ্ঞজনদের অভিমত বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা বিপুল ভোটে জয়ী হবেন ইনশাআল্লাহ। 

মাননীয় সাংসদ কক্সবাজার-১ জাফর আলমের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার আন্তরিকতায়  মাতামুহুরি নদী বেষ্টিত উপকূলীয় সাত ইউনিয়ন নিয়ে চকরিয়া উপজেলা থেকে আলাদা  করে  মাতামুহুরি উপজেলা বাস্তবায়ন  প্রক্রিয়াধীন আছে। যাহা অচিরেই আলোর মুখ দেখতে পাবে বলে মনে করে সাত ইউনিয়নের দুই লাখ মানুষ।

মাতামুহুরি উপজেলা বাস্তবায়নের পথে যাদের অবদান অনস্বীকার্য এবং সবচেয়ে বেশি  সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা  তাদের মধ্যে  অন্যতম।তিনি প্রশাসনিক কাজে পারদর্শী ,অভিজ্ঞ,দক্ষ  আর উপকূলীয় প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সমস্যা এবং  সমধানের পথ তার চেনাজানা। তাই মাতামুহুরি উপজেলা বাস্তবায়নের পথে  জনপ্রতিনিধি হিসেবে  ভুমিকা রাখার জন্য নৌকার মাঝি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা ভাইয়ের   চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়া অতীব জরুরি।

স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের অধীন ইউনিয়ন পরিষদ প্রতিষ্ঠান টি এখনো অবহেলিত। ইউনিয়ন পরিষদকে স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করতে হয়। কারণ ইউনিয়ন পরিষদের পর্যাপ্ত অর্থ ও জনবল প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। তাই ইউনিয়নের  বিবিধ সমস্যাবলীর সমাধানের জন্য  দক্ষ এবং কৌশলী  জনপ্রিয় প্রতিনিধির বিকল্প নাই।

স্থানীয় সরকার হল গনতান্ত্রিক সরকারের প্রাথমিক স্থর বা মৌলিক ভিত্তি। গনতান্ত্রিক সরকারকে শক্তিশালী করতে  হলে স্থানীয় সরকারকে শক্তিশালী করতে হবে।আর তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে  নৌকায় ভোট দেয়া দরকার।

নব্বই দশকের সে চেনা বজ্র কন্ঠী মানুষটি মনের গভীরতম অনুভূতি  নিয়ে এখনো  মানুষের পাশে থেকে সেবা আর ভালবাসা বিলিয়ে যাচ্ছেন। তাই   পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়নের জন্য সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা যোগ্য প্রার্থী  মনে করেন সমাজ সচেতন মানুষ।বিশ্বস্ত নেতা  মনে করেন কৃষক শ্রমিক মেহনতী জনতা। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।

লেখক

বদরুল ইসলাম বাদল
নব্বই দশকের সাবেক ছাত্র নেতা।
ঢেমুশিয়া,চকরিয়া।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ৯৬