৫২ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৮:৪৪; রবিবার ; ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

ভোগান্তি শেষ, কয়েক মিনিটেই চার্জ হবে মোবাইল- ল্যাপটপ!

আমার কক্সবাজার ডেস্ক ১৯ নভেম্বর ২০২২, ১২:৫৩

ক্রমাগত বাড়ছে বৈদ্যুতীন যন্ত্রপাতির ব্যবহার। হরেক রকমের যন্ত্র জুড়ে যাচ্ছে আমাদের জীবনের সঙ্গে। এগুলি না থাকলে যেন জীবনই অচল হয়ে পড়ে।

আর তারই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা। বৈদ্যুতীন যন্ত্রপাতির ক্ষেত্রে ব্যাটারি চার্জিংয়ের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয়।

অনেক সময় দেখা যায় যে, রাস্তায় বেরিয়ে এই সকল যন্ত্রের ব্যাটারি শেষ হয়ে যায়। এর ফলে সেটি আর ব্যবহার করা সম্ভব হয় না। আচমকা মোবাইল, ল্যাপটপ, স্মার্টওয়াচ এবং ইলেকট্রিক গাড়ির ব্যাটারির চার্জ শেষ হয়ে গেলে, খুবই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

কারণ, সেই ব্যাটারি আবার চার্জ দেওয়ার জন্য কম করে হলেও এক ঘণ্টা সময়ের প্রয়োজন হয়।

এই সমস্যা দূর করতেই বিজ্ঞানীরা বানিয়েছেন এক নতুন প্রযুক্তি কৌশল। ভারতীয় বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছেন এক নতুন প্রযুক্তি। আইআইটি গান্ধীনগর এবং জাপান অ্যাডভানস ইনস্যুরেন্স অফ সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি যৌথ ভাবে এই চমৎকার আবিষ্কারটি করেছে।

আইআইটি গান্ধীনগরের গবেষকদল একটি নতুন অ্যানোড বস্তু উদ্ভাবন করেছে, যা লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারিকে কয়েক মিনিটের মধ্যে চার্জ করে দিতে পারে। ২ডি অ্যানোড ধাতু টাইটেনিয়াম ডাইবোরাইট থেকে প্রাপ্ত নেনো সিট ব্যবহার করে সেটি তৈরি করা হয়েছে।

এটি একটি স্যান্ডউইচের মত বস্তু। কী এই আবিষ্কার—আইআইটি গান্ধীনগরের অধ্যাপক কবীর ডিসুজা জানিয়েছেন যে, এখন লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির অ্যানোড অংশটি গ্রাফাইট থেকে তৈরি হয়। গ্রাফাইটের স্তরের মধ্যে ছেদ হয় না। এর ফলে সেটির মাধ্যমে চার্জ হতে সময় লাগে।

লিথিয়াম ব্যাটারি চার্জ হতে যে বস্তু ব্যবহার করা হয়, সেটিকে সাধারণ ভাষায় অ্যানোড বলা হয়। কিন্তু এই অ্যানোড অংশটি ডাইবোরাইট দিয়ে তৈরি করা হলে তা কয়েক মিনিটের মধ্যে ব্যাটারিকে চার্জ করতে সক্ষম হবে।

এই নতুন কৌশলে ব্যবহার করে চার্জিং ব্যবস্থাকে উন্নত করা যেতে পারে বলেই দাবি। আর এর মাধ্যমে মোবাইল থেকে শুরু করে ল্যাপটপ, স্মার্ট ওয়াচ বা বৈদ্যুতীন গাড়ির ব্যাটারিও দ্রুত চার্জ করা যাবে খুব সহজেই।

ভারতে শীঘ্রই আসছে নতুন কৌশল—অধ্যাপক কবীর জানিয়েছেন যে, তাঁরা কয়েকটি ব্যাটারি উৎপাদনকারী সংস্থার সঙ্গে এই নতুন কৌশল নিয়ে কথাবার্তা বলতে শুরু করেছেন। ভবিষ্যতে ভারতে নতুন এই কৌশল চালু হয়ে যেতে পারে, যা ব্যাটারি তৈরির ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে। এর ফলে কয়েক মিনিটের মধ্যে চার্জ হয়ে যাবে সেই ব্যাটারি। ভারতে এই স্বদেশী ব্যাটারির ব্যবহার হবে এবং বিদেশেও নির্মাণ করা যেতে পারে।