১৩৭ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৩:২৩; সোমবার ; ২০ মে ২০২৪

চকরিয়ায় পাউবোর স্লুইসগেটের কাজে ডাকাতি, আহত-৮

নিজস্ব প্রতিবেদক ২৫ মে ২০২৩, ২০:৪৩

কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) অধীনে চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নস্হ বেড়িবাঁধ ও স্লুইসগেট কাজে রাতের আধারে ডাকাতি করে নগদ টাকা সহ প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকা সরঞ্জামাদি লুটপাট করে। এসময় কাজে নিয়োজিত ৭জন লেবার ও ১জন সাব-ঠিকাদারকে বেদড়ক মারধর করে গুরুতরভাবে আহত করা হয়েছে। এবিষয়ে বেড়িবাঁধের কাজ পাওয়া ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার মোঃ ফোরকান বাদী হয়ে গত (২৪মে) বুধবার রাতে অজ্ঞাত ১০/১৫ জনকে আসামী করে থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন।

এ প্রতিবেদক সরেজমিনে গেলে বাদী মোঃ ফোরকান জানান,কক্সবাজার পাউবোর অধীন খুটাখালীতে একটি বেড়িবাঁধের কাজ চলমান রয়েছে। এই কাজটির মধ্যে ২টি স্লুইসগেটের কাজও রয়েছে। বিগত চার মাস যাবৎ আমরা এসব কাজ করে যাচ্ছি।

এমতাবস্থায় গত ২৩ মে (সোমবার) দিবাগত রাত পৌন তিনটার দিকে ১০/১৫জন ডাকাত ইঞ্জিন চালিত বোট নিয়ে এসে পশ্চিম নয়াপাড়া লাগোয়া চলমান বেড়িবাঁধের কাজে কর্মরত লেবারের বাসায় ঢুকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদেরকে বেদড়ক মারধর করে। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন সাব-ঠিকাদার এহেতাশমুল হক মিন্টু ছাড়াও ফারুক, বোরহান, ছোটন,কুতুব উদ্দিন,নোমান ও ফোরকান।

এরপর ডাকাতেরা ৩টি পাম্প মেশিন, ৪টন ওজনে রড, ৮টি ভাল মানের মোবাইল,৬টি বাটন মোবাইল, লেবারদের কাছে থাকা ১লক্ষ টাকা ও সাব-ঠিকাদার মিন্টুর কাছে থাকা নগদ ১লক্ষ ৪০হাজার সহ প্রায় ১০লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছেন।

এখন ডাকাত আতংকে কাজের শেষার্ধে লেবারেরা কাজ না করে চলে যাচ্ছে। তাই আমি মূল ঠিকাদার ও পাউবোর কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সংশ্লিষ্ট থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছি।

এবিষয়ে চকরিয়া থানার এসআই ফারুক বলেন, খুটাখালীতে পাউবোর অধীনে চলমান স্লুইসগেটের কাজ করা লেবারের বাসায় রাতে ডাকাতি হয়েছে। এ ধরণের একটি লিখিত এজাহার থানায় দায়ের করলে, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিষয়টির সত্যতা নিরুপনের জন্য আমাকে দায়িত্ব অর্পণ করেন। আমি সরেজমিনে গিয়েছিলাম। ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। পরবর্তী কার্যক্রম ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গ্রহণ করবেন।