১৪৯৩ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৫:০৩; সোমবার ; ১৬ জুন ২০২৪

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসা-আরএসও সংঘর্ষে দুই সন্ত্রাসী নিহত

প্রতিনিধি, উখিয়া থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৪:১১

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সশস্ত্র দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উখিয়ার কুতুপালং মধুরছড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পশ্চিমের পাহাড়ে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে এক রোহিঙ্গার মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে আনা হয়েছে। তার নাম শামসুল আলম (২৩)। তিনি ৭ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ব্লক জি-৯-এর মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে। আরেকজনের লাশ হাসপাতালে আনার প্রক্রিয়া চলছে। তবে তাঁর নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সশস্ত্র সংগঠন আরসা ও আরএসওর মধ্যে ওই সংঘর্ষ হয়েছে। পূর্ববিরোধের জেরে এই সংঘর্ষ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এক কমিউনিটি নেতা জানিয়েছেন, আরএসও নেতা মৌলভি রহিম উল্লাহ এবং আরসা নেতা নবী হোসেন গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী গত রাত সাড়ে ৮টার দিকে জানান, সংঘর্ষে দুই রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন। একজনের মরদেহ জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আরেকজনের মরদেহ পাহাড়ি এলাকা থেকে সন্ধ্যায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। রাতেই ওই মরদেহ জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তাত্ক্ষণিক কোনো পরিচয় জানা যায়নি।

নিহত শামসুল আলমের ছোট বোন হাসিনা বেগম ক্যাম্পের কমিউনিটি নেতাদের জানিয়েছেন, আরসার লোকজন ভোরে ক্যাম্প থেকে তাঁর ভাইকে ডেকে আরসার সঙ্গে লড়াই করতে পাহাড়ে নিয়ে যান। বিকেলে জানতে পারেন, ভাইকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এই ঘটনায় আরো কয়েকজন হতাহত হওয়ার কথা শুনেছেন বলেও কমিউনিটি নেতারা জানিয়েছেন।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশের তথ্য মতে, এই ঘটনায় আরো একজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় আনা হয়েছিল। তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শামসুল আলমের মরদেহ মর্গে রয়েছে।