৭১২৫ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৮:১৯; রবিবার ; ১৬ জুলাই ২০২৪

চকরিয়ায় মামলা দিয়ে ঘরছাড়া করে বাড়ি পুড়িয়েছে প্রতিপক্ষ

জিয়াউদ্দিন ফারুক ১০ জুলাই ২০২৪, ১৮:২২

কক্সবাজারের চকরিয়ায় জমির বিরোধ নিয়ে সাজানো মারামারি মামলা দিয়ে ঘরছাড়া করে আগুন দিয়ে বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড নয়াপাড়া এলাকায় মঙ্গলবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বিএমচর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড নয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা মনজুর আলম ও আবুল নছরের সাথে বাড়িভিটির জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এ নিয়ে দেওয়ানী আদালতে ২০০৬ সালে উচ্চারণ ও চিহ্নিত দখল বজায় বিভাগের মোকদ্দমার হয়। ওই মামলায় ২০২৩ সালে ডিক্রি হয়। ওই ডিক্রি আবুল নছরের পক্ষে যায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মনজুর আলম প্রতিপক্ষকে হয়রানীর উদ্দেশ্যে গত ৫ মে মারামারির ঘটনা সাজিয়ে থানায় একটি মামলা রুজু করেন। এ মামলায় আবুল নছরের ছেলে এহেছান ও মো. সেলিম উদ্দিন জেলে যায়। একইভাবে ফের মারামারির ঘটনা দেখিয়ে ৭ জুলাই থানায় আরো একটি মামলা রুজু করেন মনজুর আলমের মেয়ে কাজলী বেগম। 

এদিকে পরপর দুই মামলায় আবুল নছরের পরিবারের লোকজনকে ঘর ছাড়া করে মনজুর আলম। 

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে মনজুর আলমের নেতৃত্বে তার দুই ছেলে মো. মাজেদ, মনছুর আলম, দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আবদুল হামিদ এর নেতৃত্বে আবুল নছরের বসতঘরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। এসময় স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। 

আবুল নছরের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম বলেন, গভীর রাতে আগুন দিয়ে দুর্বৃত্তরা সটকে পড়ে। পরে স্থানীয় লোকজন পানি ছিটিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। প্রাণে বাঁচলেও আগুনে পুড়ে আমার ৩ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, স্থানীয় বিএমচর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ড ইউপি সদস্য আবদুল হামিদের ইন্দনে মনজুর আলম ও তার ছেলেরা মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে মামলা দিয়ে ঘরছাড়া করে আমার বসতঘরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। 

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, ঘর পোড়ার ঘটনাটি শুনেছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।