১৮৪ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৫:৩০; শনিবার ; ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

ডাম্পারের চাপায় স্কুলছাত্র ফাহাদ নিহতের প্রতিবাদে খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের মানববন্ধন

শাহীন মাহমুদ রাসেল ৩০ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:৩০

ঘাতক ডাম্পারের চাপায় সদরের বাংলা বাজারে খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ইফরাদুর রহমান ফাহাদ নিহত হওয়ার প্রতিবাদে শনিবার (৩০ নভেম্বর) সকালে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

স্কুলের শিক্ষার্থীরা তাদের নিজের হাতের লেখা নানা রং-বেংরঙ্গের ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে স্কুলের প্রধান ফটকের সম্মুখে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়েকের দু”পাশে অবস্থান নিয়ে এই মানববন্ধন পালিত হয়।এতে খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দেড় হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যাররা অংশ নেন।

মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা ঘাতক ডাম্পারের চালকের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানায়। নিহত ফাহাদের শিক্ষকরা মানববন্ধনে অংশ নিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। এসময় তারাও ঘাতক ডাম্পারের চালকের মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানান। 

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে বক্তব্য রাখেন, খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এনামুল হক, স্কুলের প্রধান শিক্ষক জহিরুল হক, সহ সভাপতি মুহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন সদস্য আশরাফুল আজিজ সদস্য মোঃ আয়াজ সদস্য ইসমত আরা বেগম সদস্য মোঃ ইসমাইল।

সহঃ প্রধান শিক্ষক, বাবু সনজিৎ শর্মা, সিনিয়র সহকারী শিক্ষকঃ জনাব উবায়দুল হক, রফিকুল ইসলাম, মাইকেল পাল, নজীবুল আলম, শওকত ওসমান, আহমদুর রহমান, খাইরুন্নেসা মুন্নি, মৌলানা আবু ছৈয়দ, কবির আহমদ, সওদা পারভিন, আব্দুর রহিম, মোঃ ফয়সাল, কাওছার হামিদ, আব্দুল হক, নুরুল হক বুলবুল, আছমা খানম, ছামিরা সারমিন, সিরাজুম মুনিরা, দিদারুল আলম প্রমুখ। এসময় তারা সরকারকে আইনের যথাযথ প্রয়োগের আহ্বান জানান।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বর্তমানে সড়ক দুর্ঘটনা একটি ভয়াবহ সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। আর অদক্ষ চালক এবং ফিটনেসবিহীন গাড়ীর কারণে প্রায়ই মানুষ দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে এবং প্রতিনিয়তই মানুষ মারা যাচ্ছে। সড়কে মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হলেও তাতে সরকারের কোন কর্ণপাত নেই। তারা বলেন, এটা কোন দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকান্ড। একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটলেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা সরকার।

তাছাড়া বিভিন্ন গ্রাম থেকে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা সড়কটি অতিক্রম করে বিদ্যালয়ে আসতে হয়। বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীরা অনাকাঙ্খিত সড়ক দূর্ঘটনা থেকে বাঁচার আকুতি জানিয়ে বিদ্যালয়ের সামনে সড়কের উপর স্পিড ব্রেকার নিমার্নের দাবী জানান।

গত বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) সদরের বাংলা বাজারের পূর্ব মোক্তারকুল এলাকায় রাস্তার পাশে দাড়িয়ে থাকা খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফাহাদ ও আবুল বশর নামের বৃদ্ধের উপর পূর্বদিক দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে আসা লিংকরোডগামী একটি ডাম্পার তাদের চাপা দিলে বৃদ্ধ ঘটনাস্থলেই মারা যায়, এতে ফাহাদের মাথা থেতলে যায়। তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ১৫০