৯৫৬ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৩:২১; সোমবার ; ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শাহ রশিদিয়া আলিম মাদরাসার ভবন উদ্বোধন ও শিক্ষকের বিদায় সংবর্ধনা এমপি জাফর আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ২২:৪৫

পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের মগনামা শাহ্ রশিদিয়া আলিম মাদ্রাসায় ফায়েল খায়ের ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে নবনির্মিত একাডেমিক ভবনের শুভ উদ্ধোধন ও মাদরাসার শিক্ষক সালাহ উদ্দিন এমএ’র অবসরজনিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হযেছে। শনিবার বিকালে মাদরাসা প্রাঙ্গনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে বিদায় সংবর্ধনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম।

মাদারাসা সুপার মোহাম্মদ নুর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাঈকা শাহাদাত, পেকুয়া থানার ওসি মো.কামরুল আজম, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক আবু হেনা মোস্তফা কামাল, মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ ওয়াসিম, রাজাখালী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম বাবুল,  এমপির একান্ত সচিব আমিন চৌধুরী, উত্তর মেহেরনামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এসএমসি সভাপতি নাছির উদ্দিন বাদশা ছাড়াও ফায়েল খায়েল ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা, মাদারাসার সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী অভিভাবক ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আলহাজ জাফর আলম এমপি বলেছেন, শিক্ষকরা আলোকিত মানুষ তৈরীর বাতিঘর। কর্মের মাধ্যমে শিক্ষার বিস্তারে শিক্ষকদের সেই ভুমিকা যুগেযুগে প্রমাণিত হয়েছে। মানুষগড়ার কারিগর শিক্ষকদের কল্যাণে আজ দেশ আলোকিত হচ্ছে। বিদায় অনুষ্ঠানে মাদারাসা শিক্ষক সালাহউদ্দিন এমএম চাকুরী জীবনে একটি নতুন প্রজন্মকে। সোনালি দিন উপহার দিয়েছেন। তাঁর দেখানো পথে আগামীর পথে এগিয়ে যাবে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীরা। 

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষাখাতের অগ্রউন্নয়নে পরিকল্পিতভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের জন্য মেধানির্ভর শিক্ষার সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচন করেছে। তাঁর সদিচ্ছার কারনে আজ শিক্ষার্থীরা বিনা বেতনে লেখাপড়া সুযোগ পাচ্ছে। শিক্ষার সুষ্ট পরিবেশ নিশ্চিতে সরকার হাজার কোটি টাকা বরাদ্দে অবকাঠামোগত উন্নয়নে সব ধরণের কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করছেন। সরকারের লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশকে নিরক্ষতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করা। সেইলক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছেন। স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশে শিক্ষার মান্নোয়নে জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার অসাধারণ সাফল্য দেখিয়েছেন। 

এমপি জাফর আলম আরও বলেন, বর্তমানে বছরের প্রথমদিন শিক্ষার্থীরা নতুন পাঠ্যবই পাচ্ছে। লেখাপড়া করতে সব ধরণের উপবৃত্তি সুবিধা পাচ্ছে। মেধাবীদের সরকারি চাকুরী নিশ্চিত করা হচ্ছে। দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চালু করা হয়েছে মিড ডে মিল প্রকল্পসহ নানা ধরণের প্রনোদনা প্রকল্প। যাতে শিক্ষার্থীরা এসব সুবিধা নিয়ে সুন্দর পরিবেশে লেখাপড়া করতে পারে। নিজেকে আগামীর জন্য দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে তৈরী করতে পারে। 

 


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ২৫৯