৮ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৮:২০; মঙ্গলবার ; ০২ জুন ২০২০

করোনাভাইরাস: আরো ৮ রোহিঙ্গা করোনা ‘পজেটিভ’

আমার কক্সবাজার রিপোর্ট ২২ মে ২০২০, ১৭:৫৬

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে শুক্রবার (২২মে) ২৬ জন রোহিঙ্গা শরনার্থীর স্যাম্পল টেস্টে ৮জন রোহিঙ্গা শরনার্থীর রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ পাওয়া গেছে। বিষয়টি কক্সবাজার আরআরআরসি অফিসের স্বাস্থ্য সমন্বয়কারী ডা. আবু তোহা এম আর ভূঁইয়া কক্ষ মেডিকেল কলেজ ল্যাবের উদ্বৃতি দিয়েিএতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২২মে শুক্রবার শনাক্ত ৮জন রোগীসহ এ পর্যন্ত মোট ২১জন রোহিঙ্গা শরনার্থী (Forcibly displaced myanmar Nations-বলপূবর্ক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের নাগরিক) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

শুক্রবার (২২মে) করোনা ভাইরাসে শনাক্ত হওয়া রোহিঙ্গা শরনার্থীদের মধ্যে ৫জন মহিলা  ও ৩জন পুরুষ। শনাক্ত  ৮জন রোহিঙ্গা শরনার্থীর ৭জন ৬নম্বর শরনার্থী ক্যাম্পের। আক্রান্তরা হলেন,  মোহাম্মদ রফিক (২৩), ইউসুফ (১৩), আফসানা (১৮), নুরজাহান, তৈয়বা বেগম, হুমাইরা (২০), মোহাম্মদ (৮) এবং ২৬ নম্বর ক্যাম্পের মোহাম্মদ আলম (১৭)।

এছাড়াও গত ২১ মে পর্যন্ত ২৬০ জন রোহিঙ্গা শরনার্থীর স্যাম্পল টেস্ট করা হয়েছে বলে জানান, কক্সবাজার আরআরআরসি অফিসের স্বাস্থ্য সমন্বয়কারী ডা. আবু তোহা এম আর ভূঁইয়া।

তিনি আরো বলেন, করোনায় আক্রান্ত সকল রোগীকে ইতিমধ্যে রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্প থেকে পৃথক করে ক্যাম্পে স্থাপিত আইসোলেশন হাসপাতালে পাঠিয়ৈ চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া শনাক্ত করোনা রোগীর সাথে সম্পৃক্ত থাকা অন্যান্যদের খুঁজে কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে করোনা ভাইরাসের স্যাম্পল টেস্টের রিপোর্ট গত ২১মে থেকে পৃথক ২টি ভাগে দেওয়া হচ্ছে। ৩৪টি ক্যাম্পে থাকা রোহিঙ্গা শরনার্থীদের (Forcibly displaced myanmar Nations-বলপূবর্ক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের নাগরিক) করোনা ভাইরাসের স্যাম্পল টেস্টের রিপোর্ট প্রতিদিন প্রথম দফে দেওয়া হচ্ছে। কারণ তারা বাংলাদেশের নাগরিক নয়।

আর কক্সবাজারের বাসিন্দা সহ বাংলাদেশের নাগরিকদের করোনা ভাইরাসের স্যাম্পল টেস্টের রিপোর্ট দ্বিতীয় দফে দেওয়া হচ্ছে। করোনা ভাইরাস সংক্রামণ প্রতিরোধ কমিটির অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে নির্ভরযোগ্য সুত্র গণমাধ্যমকে জানিয়েছে।

একইভাবে এখন থেকে করোনার স্যাম্পল টেস্ট, সুস্থ রোগী, করোনায় মৃত্যু, চিকিৎসাধীন রোগী, মোট করোনা রোগীর সংখ্যা সবকিছু রোহিঙ্গা শরনার্থী ও কক্সবাজারের নাগরিকদের জন্য পৃথকভাবে করা হচ্ছে বলে সুত্রটি জানিয়েছে।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ১৪০