৬৯৫ মিনিট আগের আপডেট; দিন ১০:২৭; শুক্রবার ; ১৩ অগাস্ট ২০২০

বোধের আয়নায় জীবনের ছবি!

তানভীর মোর্শেদ তামীম ১৩ জুলাই ২০২০, ১৯:৩৯

ভালবাসা-জীবন-জীবিকা সবকিছু আমার কাছে মাঝে মধ্যে অর্থহীন হয়ে যায়। এই পৃথিবীতে কিসের নেশায় আমাদের এত ছুটাছুটি আমি অনুমান করতে গিয়ে রীতিমত স্তব্ধ হয়ে যাচ্ছি! কি দুঃসহ ; আমাদের জীবন ভাবনা । এতে আমাদের দোষ দিয়ে লাভ নেই। এটা আমাদের অর্জিত সংস্কৃতি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বয়স বাড়ার সাথে সাথে জগতের নিয়মগুলো আমাকে দ্বিগুণ বেগে ভাবাচ্ছে। জন্মের পর বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমরা এই তথাকথিত নিয়মগুলোর সাথে পরিচিত হয়ে ওঠি । প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা লাভ - ভাল একটা চাকরি অর্জন - বিয়ে - সন্তান- সন্ততি উৎপাদন - অবসর যাপন - মৃত্যু  ; এই কি তবে জীবন?  এই জীবনের জন্য কি আমরা এত পাগল?

এই জীবনের জন্য কি আমরা সকল অনিয়মকে করছি নিয়ম ; আর নিয়মকে করছি অনিয়ম? কেন!  এ জীবনের প্রতি আমাদের এত লোভ- লালসা আমি বুঝে উঠতে পারছি না। বারবার চেষ্টা করার পরও আজ আমি ব্যর্থ হচ্ছি জীবনের আসল সার্থকতা উপলব্ধি করতে?  এত টাকাকড়ি কামিয়ে কি হবে?  এই টাকাকড়ি কি পারবে আমার মৃত্যুর পর আমাকে সকল মানুষের আদর্শ কিংবা চেতনার মন্ত্র হিসেবে দাঁড় করাতে? 

পারবে কি এই পৃথিবীর কাছে আমাকে উচ্চ আদর্শ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে? পারবে কি আমাকে সকল মানুষের শ্রদ্ধার বাতিঘর হিসেবে প্রজ্জ্বলিত করতে?  পারবে না। তাহলে তবুও কেন আমরা সেই টাকাকড়ির জীবনের পেছনে ছুটছি ?  নজরুল - সুকান্তের কি বস্তা- বস্তা টাকা ছিল?  ছিল না ; কিন্তু তারা আজ মৃত্যুর বহুদিন - বহুবছর পরও শত - সহস্র মানুষের চেতনা জ্বলন্ত প্রদীপ এবং শ্রদ্ধা - ভালবাসার যোগ্যতম পাত্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ।

কোন জীবন অতি উত্তম ?  যে জীবন পয়সা কামাতে কামাতে শেষ হয়ে যায় সে জীবন?  নাকি যে জীবন দু- বেলা খেয়ে বেঁচে থেকে পৃথিবীর মানুষের কাছে রেখে যায় মানবিক আদর্শ আর সৃজন ; যা থেকে উপকৃত হয় জগত - বিকশিত হচ্ছে মানব মনন । প্রখ্যাত লেখক মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় জীবনের বেশিরভাগ কাটিয়েছেন অনহারে - দুবেলা ঠিকমত খেতে পাননি কিন্তু তার পাঠ্য পাঠ করে আমরা আমাদের মনুষ্যত্বকে করি বিকশিত আর প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাকে করি উপযুক্ত ।

টাকাকড়ি কি পারবে একটা মানিক বাবু কিংবা একটা ছফা সাহেব তৈরী করতে?  পারবে কি চিত্ররূপময়ী কবি জীবনানন্দ আবিষ্কার করতে?  পারবে কি একজন আর্জেন্টিনীয় বিপ্লবী চে গুয়েভারা কিংবা অহিংস আন্দোলনের পথিকৃৎ মহাত্মা গান্ধীকে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দিতে? পারবে কি বাংলার সতের কোটি মানুষের হৃদয়ের অসীম সাহসী পুরুষ, রাজনীতির কবি শেখ মুজিব কিংবা কৃষ্ণাঙ্গ নেতা নেলসন মেন্ডেলাকে পুনর্বার এই বাংলায় অথবা পশ্চিমে লক্ষ লক্ষ জনতার মাঝে নতুন কোন মানবের মধ্যে প্রতিষ্ঠিত করতে? পারবে  কি?  পারবে না। তাহলে কি সে টাকা নিশ্চিতভাবে পরাজয় বরণ করেছে সমাজ কিংবা রাষ্ট্রীয় বিবেকের কাছে! নয় তো কি?


লেখক : তানভীর মোর্শেদ তামীম  

কলামিস্ট।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ১৫৭