৪৮৩ মিনিট আগের আপডেট; দিন ৬:২৪; শনিবার ; ২৩ অক্টোবর ২০২০

মাদকাসক্ত জামাইর হাতে শ্বশুর খুন : শ্বাশুড়িও আশংকাজনক

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:৩৮

কক্সবাজার সদর উপজেলার ভারুয়াখালীর মশরপাড়ায় মাদকাসক্ত জামাইর হাতে খুন হয়েছে শ্বশুর কাঠমিস্ত্রি নুরুল কবির (৪৫)। এ ঘটনায় শুরুতর আহত হয়েছে শাশুড়ি নুর জাহান বেগম (৪০)।

তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। সোমবার (২২ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

খুনী মেয়ের জামাই নাম মিজানুর রহমান (২৮)। সে ভারুয়াখালী ইউনিয়নের বানিয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা জনৈক আমির হোসেনের ছেলে। নিহত নুর কবির একই ইউনিয়নের মশরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত মো. ইব্রাহিমের ছেলে এবং আহত মহিলা নিহত নুর কবিরের স্ত্রী।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দেড় বছর আগে আমির হোসেনের ছেলে প্রবাসী মিজানুর রহমানের সাথে নুরুল কবিরের মেয়ে জেরিন আক্তারের বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের সংসারে ছয় মাস বয়সী একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। সংসারে স্বামীর সাথে বিভিন্ন কারণে মনোমালিন্য সৃষ্টি হওয়ায় স্ত্রী জেরিন আক্তার নিজ বাপের বাড়িতে চলে যায়।

প্রবাসী মিজানুর রহমান বিদেশ হতে দেশে ফিরে বউকে দেওয়া ৭ ভরি স্বর্ণ বিক্রি করে দেয়। এগুলো শেষ হলে স্ত্রীকে বাপের বাড়ি হতে টাকা এনে দেওয়ার জন্য নির্যাতন করতে থাকে। অমানসিক নির্যাতন সইতে না পেরে গরীব কাঠমিস্ত্রী পিতার কাছ থেকে কোনমতে ১ লক্ষ টাকা এনে দেয় স্বামীর হাতে। এরই মধ্যে মিজান এলাকায় প্রতিনিয়ত মাদক ও জুয়ার আসরে মেতে উঠে।

পরে আবারো বাপের বাড়ি থেকে টাকা এনে দেওয়ার কথা বললে স্বামী-স্ত্রীর কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি মারধর করে মিজান। ওই ঘটনায় সে (জেরিন) নিরুপায় হয়ে বাপের বাড়ি চলে যায়। 

এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে রাতের আঁধারে শ্বশুর বাড়ীতে ডুকে স্ত্রীকে ব্যাপক মারধরসহ কিছু বুঝে উঠার আগেই পরিবারের লোকজনকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। এসময় শ্বশুর নুরুল কবির ও শ্বাশুড়ি নুর জাহান বেগম গুরুতর আহত হয়।

এ ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত ৩টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক নুরুল কবিরকে মৃত ঘোষণা করেন এবং সংকটাপন্ন নুর জাহান বেগমকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন।

এদিকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কক্সবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুম খান জানান, সাংসারিক পূর্ব বিরোধের জের ধরে মিজানুর রহমান শ্বশুর বাড়িতে ঢুকে স্ত্রীকে ব্যাপক মারধর করতে থাকে। এতে শ্বশুর শ্বাশুড়ি বাধা দেওয়ায় তাদের ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই শ্বশুর নুরুল কবির মারা যায়।

তিনি জানান, গুরুতর আহত শ্বাশুড়ির অবস্থাও আশংকাজনক। তাকে চমেক রেফার করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ৭৮