২৫১ মিনিট আগের আপডেট; দিন ৫:৫৬; বৃহস্পতিবার ; ০৯ এপ্রিল ২০২০

ব্লগ

Noimage

২৬ মার্চ ২০২০, ২১:০৪

কে মরি, কে বাঁচি জানি না

Abu Sumain

কে মরি, কে বাঁচি জানি না। জানে শুধু উপরওয়ালা। তার হাতেই সবকিছু। চারদিক থেকে একের পর এক খারাপ খবর আসছে। এই মুহূর্তে বাংলাদেশ কার্যত লকডাউন হয়ে গেছে। এটা একটি উত্তম ব্যবস্থা। আরো আগে হলে ভালো হতো। সবকিছু থেমে গেছে। অসুস্থ রাজনীতির লড়াইও নির্বাসনে। স্বাধীনতা দিবসও চলে গেল নিরবে। অফিস-আদালত বন্ধ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। গণপরিবহনের চাকাও ঘুরছে না। বিমানব

Abu Sumain

মালয়েশিয়ার রাজনীতিতে এক বিশাল ঝড় বয়ে গেলো! এক ঝড়ে মাহাথির মোহাম্মদ পদত্যাগ করলেন। মহিউদ্দিন ইয়াসিন নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন। সরকারী জোট ভেঙ্গে যাওয়ায় আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান বিরোধী দলে চলে গেলো। আর নাজিব রাজ্জাকের জোট বারিসান ন্যাশনাল সরকারী দলের অংশ হয়ে গেলো।

মহিউদ্দিন ইয়াসিন নাজিব সরকারে উপ-প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। পরে মাহ

Noimage

১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:৫১

তৃতীয় মত: গরিবের আন্দোলন- বড়লোকের উৎসব

Abu Sumain

ফেব্রুয়ারি মাস এলে আমি এখন উৎসাহিত হওয়ার বদলে উদ্বিগ্ন হই। টেলিভিশন, রেডিও, সংবাদপত্র এবং নানা প্রতিষ্ঠান একযোগে এসে হামলা চালায় আমার ওপরে। দাবি, একুশের ওপর লেখা দিতে হবে, এ ইন্টারভিউ দিতে হবে। বক্তব্য দিতে হবে।

একই সঙ্গে যদি আমাকে পাঁচটা অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে হয় এবং পাঁচটা টেলি-ইন্টারভিউ দিতে হয় তাহলে যাই কোথা? আগে একদিনে একাধিক অনুষ্ঠানে যেতে

Abu Sumain

ওয়াজ করা আজহারীকে নিয়ে কেউ জানাবেন সত্যটা? ইউটিউব দেখি এখন ওয়াজ করা হুজুরদের দখলে! ওয়াজেও দেখি নতুন মাত্রা এসেছে। অনেকে বাঙালি সংস্কৃতির বিরুদ্ধে বলতে গিয়ে জেমস, আইয়ুব বাচ্চুকে হার মানিয়ে গানও ধরেন। অনেকে হিন্দি গান করেন। কত ঢং! ধর্মীয় গানও করেন কেউ কেউ। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য আগের মতো থাকে না, বিনোদন হয়ে ওঠে।

কখনো কখনো ওয়াজ মাহফিল থেকে বক্তাকে বিদ

Noimage

১০ জানুয়ারী ২০২০, ১৩:৪২

ওই মহামানব আসে...

Abu Sumain

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা শুরু হচ্ছে তার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের দিনটিতে। পাকিস্তানের কারাগার থেকে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি মুক্ত স্বদেশের মাটিতে পা রেখেছিলেন আমাদের মহামানব। সেদিনের স্মৃতি আমার জীবনে চিরজীবন্ত হয়ে আছে। গোটা বাঙালি জাতি তার আগমনের প্রতীক্ষায় ক্ষণ গুনছিল। সবার হৃদয়ের মধ্যে গুঞ্জরিত হচ্ছিল রবীন্দ্র

Abu Sumain

শেকড় থেকে শিখর পর্যন্ত সন্ত্রাস-দুর্নীতি আর মাদকের মতো অপরাধ নির্মূলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। জাতীয় সংসদে বলেছেন, সন্ত্রাস-দুর্নীতি আর মাদকের মতো অপরাধ নির্মূলে তিনি বদ্ধপরিকর। এ কথা তিনি আগেও বলেছেন। এবার বললেন জাতীয় সংসদে। সংসদে বলার অর্থই হচ্ছে, মাননীয় সংসদ নেতা গোটা জাতিকে এই বার্তাটি জানিয়ে দিলেন।

সংসদে অপরাপর মান

Abu Sumain

টক অব দা কান্ট্রি হচ্ছে ক্যাসিনো মানে জুয়া খেলা। পাশাপাশি র‍্যাব এবং পুলিশের অভিযানে যে বিপুল পরিমাণ অর্থ, ডলার,  স্বর্ণালংকার, বিদেশি মদ, ক্যাসিনো খেলার সামগ্রী আটক হচ্ছে দেশ এখন টাল মাটাল হয়ে উঠেছে। রাজধানীতে জুয়ার আসর বসার কথা শোনা গেলেও আধুনিক ক্যাসিনোর অস্তিত্ব থাকার খবর একেবারেই নতুন।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর’১৯ রাতে র‍্যাব রাজধানীর গুলিস্তানে

Noimage

১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১২:২১

বাংলাদেশ আজ বিশ্বব্যাপী বিস্তৃত

Abu Sumain

স্বাধীন হয়েছি মাত্র ৪৮ বছর। তার আগে ২৩ বছর আমরা শোষিত-নির্যাতিত পেটে-ভাতে খেয়ে-পরে কোনোমতে বেঁচে থাকা তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের বাসিন্দা ছিলাম। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে নয় মাস যুদ্ধ করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে। স্বাধীনতা লাভের পর বাংলাদেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি বলা হতো। সে সময় বাংলাদেশের সাড়ে ৭ কোটি ম

Abu Sumain

কোনো কিছু ঠিকঠাকভাবে চললে নিষিদ্ধ হয় না। ভালো কাজ, উত্তম কাজ সুন্দরভাবেই অব্যাহত থাকে। কিন্তু যখন অনিয়ম, হিংস্রতা, নৃশংসতা আর অমানবিকতার স্বরূপ দেখা যায় সেখানেই আসে নিষেধাজ্ঞার খড়গ। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়(বুয়েট) এ ছাত্র রাজনীতির নামে আড়ালে যে উগ্রতা, নৃশংসতা এবং অমানবিকতার উৎপাত শুরু হয়েছিলো তা বন্ধ হওয়া সময়ের দাবি ছিলো। দেশের সর্বোচ্চ এই

Abu Sumain

সন্তানদের গায়ে সামান্য একাটা আঁচড় লাগলেও সে ব্যথা মায়েরা নিজের শরীরে টের পায়। মনে মনে সব ব্যথা নিজের শরীরে ধারণ করে।

আবরারের মায়ের শরীরে, মনে এই কষ্ট কতদিন স্থায়ী হবে, কত রাত উনি দুঃস্বপ্ন দেখে ঘুম থেকে উঠে কান্নায় ভেঙ্গে পড়বেন, সে কল্পনা আমি করতে চাই না। ভাবলে আমার নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসে, স্নায়ু ভোঁতা হয়ে যায়।

ভগবান শীব জগতের সব বিষ নিজের কণ্

Abu Sumain

দিবালোকে আলোচিত এবং চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যার দৃশ্য এখনো মানুষের হৃদয় এবং মানস-পট থেকে বিস্মৃত হয়ে যায়নি। বলছি ২৫ জুন ১৯ সকালে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করার ঘটনার কথা। 

পাশাপাশি গত ২ জুলাই ১৯ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ১ নম্বর আসামি নয়ন বন্ড ক্রসফায়ারে নিহত হয়। হত্যাকাণ্ডে সাব্বির ওরফে নয়ন বণ্ড, রিফাত ফ

Noimage

২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৫১

বাংলাদেশে নারীবাদ, ভ্রান্তি ও বিদ্বেষ

Abu Sumain

মাঝে মাঝে এমন সব ঘটনার সামনে পড়ি, কিছু বিষয় আমাকে বারবার নতুন করে ভাবতে হয়। আজ আমাদের সমাজ যে পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, তাতে ভাববার মতো ইস্যু বা ঘটনার অভাব নাই। সোস্যাল মিডিয়ার কল্যাণে মানুষ দিনে একটা ঘটনা নিয়ে ব্যস্ত তো রাতে আরেকটা। সময়ের কাঁটা যেভাবে অস্থির গতিতে চলছে, আমাদের আলোচনার বিষয়বস্তুও সেরকম খাপছাড়া ভাবেই চলছে। 

সমস্যা নি