৫৩৩ মিনিট আগের আপডেট; দিন ৬:৩৮; মঙ্গলবার ; ০৮ মার্চ ২০২১

ব্লগ

Noimage

০৪ মার্চ ২০২১, ১৫:২২

টেলিফোন

Abu Sumain

পথের বাঁকে এসে থমকে দাঁড়িয়ে  
টেলিফোনে দেই তোমাকে খবর, 
এসেছি আমি তুমি জানোনি কো 
সংবাদ টা দেই যবর। 
রিসিভার হাতে নিয়ে ডায়ালের 
নং ঘুড়িয়ে স্ব-যতনে, 
ক্রিংক্রিং শব্দে অপরপ্রান্ত থেকে 
অট্টহাসি লুফো গোপনে। 
নিজের অজান্তে কবে নিজেই 
হারায় নীরব মনান্তর, 
ডায়লগ স্ক্রিপ্ট খুঁজে দিশেহারা 
বুঝি এই বিষাদের অন্তর।
অচেনা ক্ষনে দেখ অজানা প্রান্তরে 

Abu Sumain

পৃথিবীতে তো বহু সুযোগ পেয়েছেন কিংবা হাতছাড়া করেছেন। এবার তাহলে একটু চাঁদে সুযোগ নেওয়া যাক? হ্যাঁ, এমনই সুযোগ তৈরি হয়েছে। জাপানি ধনকুবের ইউসাকুমাইজাওয়া তার সঙ্গে চাঁদে নিয়ে যাচ্ছেন আরো ৮ জনকে। যার পুরো খরচ তিনি নিজেই বহন করবেন।

আগামী ২০২৩ সালে মাইজাওয়া চাঁদে এ ভ্রমণের জন্য রকেট বুকিংও দিয়ে রেখেছেন। তার এ মিশনের নামকরণ করা হয়েছে ‘ডিয়ারম

Abu Sumain

অমর একুশে বই মেলায় প্রকাশিত হতে যাচ্ছে সাংবাদিক ও সুন্দরবনের দস্যুদের আত্মসমর্পণে মধ্যস্থতাকারী মোহসীন-উল হাকিমের বই “জীবনে ফেরার গল্প”। স্রোতের বিপরীতে গিয়ে গহীন অরণ্যে শান্তি ফেরানোর লক্ষ্য নিয়ে একজন মানুষের ‘একলা চলার’ সংগ্রামের গল্প উঠে এসেছে বইটিতে। এর পাতায় পাতায় উঠে এসেছে সুন্দরবনের মানুষের জীবনের নির্মম বাস্তবতা, রাজনীত

Abu Sumain

ইসলাম ঘোষণা করেছে, মাতৃভাষা ব্যবহার করার অধিকার মানুষের সৃষ্টিগত তথা জন্মগত অধিকার। কারণ মহান আল্লাহ্ তা‘আলা মানুষকে সৃষ্টি করেছেন এবং সাথে সাথে তাকে তার ভাষা শিক্ষা দিয়েছেন। 

এ প্রসঙ্গে আল্লাহ্ তা‘আলা বলেন :‘‘দয়াময় আল্লাহ্। তিনিই শিক্ষা দিয়াছেন কুরআন। তিনিই সৃষ্টি করেছেন মানুষ। তিনিই তাকে শিখিয়েছেন ভাব প্রকাশ করতে।’’ এ আয়াতে মানব সৃ

Noimage

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২২:৪৪

একুশের একুশ

Abu Sumain

বাহান্নের একুশ গত হয়েছে ঊনসত্তর বছর আগে...
তবুও একুশ জাগ্রত থাকে গ্রীষ্ম, বসন্ত, মাঘে।

জীবন দিয়েছে সালাম, রফিক, শফিক, বরকত, জব্বার..
তাই বলে ভাষা রক্ষার দায়িত্ব থেকে হয়েছে কে নির্ভার?

ফেব্রুয়ারি এলে শহিদ বেদীতে ফুল দেয়াটাই একুশ?
সারাবছর যদি মেতে থাকি সবাই পরে ভিনদেশী মুখোশ!

একুশ মানে কি খালি পায়ে শুধু প্রভাত ফেরির গান?
বাংলা ভাষার নাম

Abu Sumain

বাণী ইসরাঈলের উপর যে, কিতাব অবতীর্ণ হয়েছিল তাতেই আল্লাহ তাআলা তাদেরকে প্রথম থেকেই খবর দিয়েছিলেন যে, তারা যমীনে দু'বার হঠকারিতা করবে এবং ঔদ্ধত্যপণা দেখাবে এবং কঠিন হাঙ্গামা সৃষ্টি করবে। আল্লাহপাক বলেনঃ তাদের প্রথম হাঙ্গামার সময় আমি আমার মাখলুকের মধ্য হতে ঐ লোকদের আধিপত্য তাদের উপর স্থাপন করি যারা খুব বড় যোদ্ধা এবং বড় বড় যুদ্ধাস্ত্রের অধিকারী।

Abu Sumain

ভালোবাসার রং কী? প্রশ্ন একটি, উত্তর ভিন্ন ভিন্ন। রক্তের স্্েরাত, বুট, টিয়ারশেল আর গুলির তীব্র ঝাঁজালো বারুদের গন্ধ এমন ভাবে ভালোবেসে সবাইকে ঋণী করে আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি। ভাষা আন্দোলনের আত্মদানের ফেব্রুয়ারি। এরশাদের আমলে প্রতি  ফেব্রুয়ারিতেই ছাত্ররা রুখে দাঁড়াতেন। এর আগে পরেও প্রায় প্রতি ফেব্রুয়ারিতেই বাংলাদেশ লড়েছে ও শহীদের লাশ কাঁধে করে বয়েছে। ঠি

Abu Sumain

আল-জাজিরার টানা এক ঘণ্টা ২০ সেকেন্ডের ডকুমেন্টারিটি দেখলাম। বাংলাদেশের সেনাপ্রধান, প্রধানমন্ত্রী তথা সরকারকে মাফিয়া হিসেবে বিশ্বে পরিচিত করার জন্য অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে ডকুমেন্টারিটি বানানো হয়েছে। ডকুমেন্টারিতে 'মাফিয়া' শব্দটি ব্যবহারও করেছে আল-জাজিরা।  

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় (সম্ভবত 'বিলাসী' গল্পে) একটি উদাহরণ দিয়েছিলেন। তাঁর একজাক্ট কোটটি

Abu Sumain

কবি রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ লিখেছেন. "চালের গুদামে তবু জমা হয় অনাহারী মানুষের হাড় এ চোখে ঘুম আসেনা।”! যে সব আহার্য সামগ্রী গ্রহণ করলে জীবদেহের বৃদ্ধি, পুষ্টি, শক্তি উৎপাদন ও ক্ষয়পূরন হয়, তাকেই খাদ্য বলে। জীবনধারনের জন্য প্রত্যেক জীবকেই খাদ্য গ্রহণ করতে হয়। খাদ্য ছাড়া মানুষ বেচেঁ থাকতে পারে না। খাদ্য মানুষের মৌলিক অধিকার। এ অধিকা

Abu Sumain

যতদূর জানি, আদ্যন্ত মানুষ আর তার জীবন যাপনের যাবতীয় অনুষঙ্গই মানবিক মূল্যবোধের জিনিস। মানুষকে শ্রেষ্ঠ ভাবা, মানবিক গুণগুলোকে জীবনাচরণের ক্ষেত্রে প্রাধান্য দেওয়া এবং সকল মানব—প্রসঙ্গকে গুরুত্বের সঙ্গে গ্রহণ করাকেই আমি মানবিক মূল্যবোধের বিষয় বলে বিবেচনা করি।

আর জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন কক্সবাজারে যোগদানের পর থেকে যে ছোট ছোট গল্প তৈরি করেছে

Abu Sumain

ভার্স্কয অপসারণ নিয়ে মৌলবাদ কিংবা উগ্রপন্থা নতুন করে জেগে উঠেছে তা নয়। তারা নানা সময়ে নানা ইস্যুতে দেশকে অস্থিতিশীল করে আসছে। তা বেশ পুরোনো ঘটনা। তারা তো দেশ স্বাধীন হোক তাও চায়নি। এর মাশুলও এই জাতি কম দেয়নি। তারপরও তারা তাদের মতোই ভাবে তাদের মতোই গুঁড়ামীর মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে।

মৌলবাদ কোনো দেশে শান্তি বা সমৃদ্ধি এনেছে তার নজির নেই। তারা কেবল রাষ

Abu Sumain

৫ ডিসেম্বর, ১৯৮৭ সাল। এই দিনে স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র গণআন্দোলনে চকরিয়ায় পুলিশের গুলিতে দৌলত খাঁন শহীদ হয়েছিল। দৌলত খাঁন এতদাঞ্চলে স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র গণআন্দোলনে একমাত্র শহীদ ছাত্রনেতা। তিনি অবিভক্ত চকরিয়া উপজেলা জাতীয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি ছিলেন।

৫ ডিসেম্বর সারা দেশে ৮ দলীয় জোট, ৭ দলীয় জোট ও ৫ দলীয় বাম জোট উপজেলা ঘেরাও কর্মসূচী ঘোষণা করে। ওই ঘে